মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

গ্রাম পুলিশের দায়িত্ত্ব

১। তিনি দিনে ও রাতে ইউনিয়ন পাহারা ও টহলদারী করবেন।

২। অপরাধের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সকল বিষয় অনুসন্ধান ও দমন করবেন এবং অপরাধীদের গ্রেফতার করতে সাধ্যমত পুলিশকে সহায়তা করবেন।

৩। চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন পরিষদকে সহায়তা করবেন ।

৪। অন্য নির্দেশ না থাকলে প্রতি পনের দিন পর পর এলাকার অবস্থা সর্ম্পকে সংশ্লিষ্ট  থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকতৃাকে অবহিত করবেন।

৫। ইউনিয়নে খারাপ চরিত্রের লোকের গতিবিধি লক্ষ্য করবেন এবং মাঝে মাঝে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে অবহিত করবেন। পার্শ্ববর্তী এলাকা হতে আগত কোন সন্দেহ জনক ব্যক্তির উপস্থিতি সর্ম্পকে থানার ভার-প্রাপ্ত কর্মকর্তাকে অবহিত করবেন।

৬। ইউনিয়নে লুকিয়ে থাকা কোন ব্যক্তি ,যার জীবন ধারনের জন্য প্রকাশ্য আয় নেয় বা যে তার নিজের পরিচয় সম্র্পকে সন্তোষজনক কোন জবাব দিতে পারেনা ,এমন লোক সর্ম্পকে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার নিকট রিপোর্ট প্রদান করবেন।

৭। থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে সে সকল বিষয় সর্ম্পকে অবহিত করবেন যা বিরোধ,দাংগা -হাংগামা বা তুমুর কলহ সৃষ্টি করতে এবং জনগনের শান্তি বিঘ্নিত করতে পারে।

৮। ইউনিয়নে নিম্ন লিখিত অপরাধ সংগঠন বা সম্পাদনের অভিপ্রায় সর্ম্পকে কোন তথ্য অবহিত হলে তা অনতিবিলম্বে

থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে অবহিত করবেন। যেমন-

     (ক) দাংগা-হাংগামা

     (খ) গোপনে মৃতদেহ সরিয়ে জন্ম সংক্রান্ত তথ্য গোপন করা।

     (গ) কোন শিশুকে বাড়ি থেকে বের করে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দেওয়া।

     (ঘ) আগুনের সাহায্যে সংঘটিত ক্ষতি।

     (ঙ) বিষ প্রয়োগে গবাদি পশুর অনিষ্ট বা ক্ষতি করা।

৯। জন্ম মৃত্যু রেজিষ্টার সংরক্ষন এবং এলাকার সব জন্ম ও মৃত্যূ সর্ম্পকে পরিষদকে অবহিত করবেন।

১০। মহল্লাদার ও দফাদার ম্যাজিস্ট্রেটের হুকুম ও ওয়ারেন্ট ছাড়াই গ্রেফতার করতে পারে।যেমন- যদি কেউ কোন আদালত অগ্রাহ অপরাধ করে,বা কার কাছে কোন সিধেল যন্ত্র বা চোড়াই মাল থাকে বা কেই হাজত থেকে পালায়ন করে গ্রামে আত্মগোপন করলে ইত্যাদি। তাদেরকে যতশীঘ্র সম্ভব থানায় সোর্পদ করতে হবে।

 

১১। সরকারী কাজের উদ্দেশ্য যে কোন স্থানীয় তথ্য সরবরাহ করবেন।

১২। খাজনা অথবা ভূমি উন্নয়ন কর ,স্থানীয় কর ফি বা অন্য কোন পাওনা সংগ্রহ ও আদায়ে তিনি রাজস্ব কর্মচারীদের সহায়তা করবেন।

এছাড়াও গ্রাম পুলিশ আরও কিছু গুরুত্পূর্ণ দায়িত্ব পালন করে থাকেন।যেমন-এলাকায় কোন অস্বাভাবিক মৃত্যু হলে বা মার্ডার হলে লাশ পাহারা দেওয়া লাশ থানায় পৌছান পর্যন্ত তার সঙ্গে থাকা।থানার পুলিশ এলাকায় আসলে তাদের সর্ব ক্ষনের স্থায়ী হওয়া।সরকারী কোন উচু পর্যায়ের কর্মকর্তা এলাকায় পরির্দশনে এল তাকেঁ সার্বিক সাহায্য করা কোর্টের মামলা মোকদ্দমার নোটিশ জারী করা এবং চেয়ারম্যান ও সদস্যদের আদেশ অনুসারে কাজ করা।গ্রাম পুলিশ গন বর্তমানে থানা পুলিশও ইউনিয়ন পরিষদের যৌথ নিয়ন্ত্রনে কাজ করে। প্রতি সপ্তাহে তাদেরকে থানায় এবং সবসময় ইউনিয়ন পরিষদ অফিসে হাজিরা দিতে হয়। গ্রাম আদারতের বিচারে তাদেরকে উপস্থিত থাকতে হয়। এমনি ভাবে দেখা যায় যে গ্রাম পুলিশগণ বিভিন্ন দায়িত পালন করে আসছেন।

ছবি


সংযুক্তি



Share with :

Facebook Twitter